ওষুধ না খেয়ে কমিয়ে ফেলুন রক্তের কোলেস্টেরল

2017-10-03 স্বাস্থ্য পরামর্শ

ওষুধ না খেয়ে কি করে রক্তের কোলেস্টেরল কমানো যায়। ভাজাপোড়া এবং অনিয়মিত জীবন যাপনের জন্য আমাদের রক্তে কোলেস্টেরলের পরিমাণ বেড়ে যায. অথবা নিয়মিত ডায়েটের  কারণেও এ সমস্যা হতে পারে।  অনিয়ন্ত্রিত কোলেস্টেরল এর কারনে হৃদরোগসহ নানা ধরনের জটিল রোগ হতে পার। তাই শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে গেলে দ্রুত চিকিৎসা করে করা উচিত বাবা মায়ের মধ্যে যদি হৃদ রোগ সমস্যা থাকে তাহলে ক্রমান্বয়ে সন্তানের মধ্যে এই রোগ ছড়িয়ে পড়ে।   এছাড়াও কোলেস্টেরল বেড়ে গেলে উচ্চ রক্তচাপ বেড়ে যায় মেদ ভুড়ি সমস্যা প্রকটতর হয়। যাদের উচ্চ রক্তচাপ এবং এই সমস্যা রয়েছে তাদের শরীরে কোলেস্টেরল পরিমাণ ৭০ রাখা বাঞ্ছনীয়। এ রকম সমস্যা নেই যাদের তাদের কোলেস্টেরলের মাত্রা  ১৬০ পর্যন্ত রাখা বাঞ্ছনীয়।শরীরে কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমানোর ক্ষেত্রে যে সকল উপায় কার্যকরী বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞ তা হলঃ

আসুন এ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিনঃ

১।আমলকিঃ

 নিয়মিত আমলকি খেলে রক্ত হতে ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমতে দারুণ কার্য্মতে।

২।ধনিয়াঃ

 এক গ্লাস গরম পানিতে এক চামুচ ধনিয়া ফুটিয়ে  সেই পানি পান করলে শরীরে কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমে যাবে।

৩। কমলাঃ

 প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে, যা শরীরের অপ্রয়োজনীয় কোলেস্টেরল গুলোকে অপসারণে দারুণ কাজ করে।

৫।  ভিনেগার এক গ্লাস পানিতে এক চামচ ভিনেগার মিশিয়ে খেয়ে ফেলুন এটা আপনার শরীরের কোলেস্টেরল কমাতে যথেষ্ট কার্যকরী।

৬। বাদামঃ

 বাদামে প্রচুর পরিমানে ফাইবার রয়েছে যা কোলোস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।

৭।আখঃ

 আখে আছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার  এটা কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।

৮। মধু পেঁয়াজের রসঃ

 মধু পেঁয়াজের রস একসাথে মিশিয়ে কুসুম গরম পানি এক গ্লাস পানি খেয়ে ফেলুন এটাও আপনার শরীরের কোলেস্টেরল কমাতে কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে।



Similar Post You May Like