দর্শনীয় স্থানের তালিকা থেকে বাদ পড়লো উত্তরপ্রদেশের তাজমহল

2017-10-25 এশিয়া

তাজমহল নিঃসন্দেহে একটি দর্শনীয় স্থান পৃথিবীর সপ্তম তম দর্শনীয় স্থান।প্রতি বছর হাজার হাজার পর্যটক এর সুন্দর্য উপভোগের জন্য তাজমহল দেখতে আসে ।

আগ্রার তাজমহল ক্রিত্রিম সৃষ্টি হলেও এর নান্দনিক সুন্দর্য সকলকে আকৃষ্ট করে আর এই আকর্ষণের কারণে প্রতিবছর হাজার হাজার পর্যটক এবং দর্শনার্থী তাজমহল পরি -দর্শনের জন্য উত্তরপ্রদেশের এই আগ্রারায় পারি জমায়। একটু মানসিক প্রশান্তি পাবার উদ্দেশ্যে। আর তাজমহলকে নিয়ে চলছে নানা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানের তালিকায় তাজমহল থাকছে না পর্যটন এবং বিভিন্ন গন্যমান্য ব্যক্তিগন তাজমহলের বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলছেন এবং বিভিন্ন মন্তব্য প্রদান করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় হরিয়ানা প্রদেশ স্বাস্থ্য এবং ক্রীড়ামন্ত্রী ভিজ টুইট করেছেন এবং এই তিনি তাজমহল সম্পর্কে যে মন্তব্য করেছেন তাতে নিঃসন্দেহে তাজমহলের সম্মানকে ক্ষুণ্ণ হ্যেছে। তিনি তাজমহল কে কবর বলে আখ্যায়িত করেছেন।ভারতের উত্তর প্রদেশের পর্যটন পুস্তিকায় বিশ্বের অন্যতম সুন্দর দর্শনীয় স্থান তাজমহলের কোন নাম দেখা যায়নি এবং সম্প্রতিকালে এর দর্শনীয় স্থানের মধ্যে ও তার নাম পাওয়া যায়নি এ নিয়ে বিভিন্ন তর্ক বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে কিন্তু তাতেও কোন লাভ হয়নি কারণ ভারতের মুখ্যমন্ত্রী সহ গণ্যমান্য আরো বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ মন্তব্য করেছেন যে তাজমহল সত্যিকার অর্থে কোন সুখকর স্মৃতি চিহ্ন নয় এটি ভারতবাসীর কষ্টের এবং রক্ত ঘামা নীপিড়িত মানুষের স্মৃতি চিহ্ন যা কখনোই আনন্দঘন মুহূর্ত এর প্রশান্তির স্থান হতে পারে না । আর তাই বিশ্ব পর্যটন পুস্তিকা থেকে এর নাম বাতিল করা হয়েছে। মন্তব্যে আরও জানা গেছে যে সকলে বলেছে দেশের সংস্কৃতিতে কখনোই তাজমহল থাকার কোনো যৌক্তিকতা নেই কারণ তাজমহল কে তৈরি করেছিল সে তার নিজের বাবাকে বন্দী করে রেখেছিলো ।তাই এই তাজমহল কখনোই ভারতের সংস্কৃতির বাহক ও হতে পারেনা এটি ভারতের কলঙ্কিত সংস্কৃতির চিহ্ন।



Similar Post You May Like