বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট শিশুদের মোটা হয়ে যাওয়ার কারণ

2017-10-24 স্বাস্থ্য পরামর্শ

বর্তমান সময়ে অর্থাৎ গত কয়েক বছর ধরে লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে শিশুদের কিছুটা মোটা হওয়ার প্রবণতা পূর্বের তুলনায় বেড়ে চলেছে। যা কিন্তু কখনোই ভালো না এবং অতিরিক্ত মোটা স্বাস্থ্য ভালো না। মোটা স্বাস্থ্য শিশুকে অলস কর্ম বিমুখ করে ফেলে।

বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক সংস্থা আইসিডিডিআর ২০১৪ সালে ওবেসিটি বিষয়ক একটি জরিপ করেছিল বলে জানা যাচ্ছে।

১০,০০০ হাজার স্কুল গামী ছাত্র ছাত্রীর উপর এই ওবিসিটি পরীক্ষা চালানো হয়েছিল এবং শিশুরওবেসিটির হার ছিল ৫.৬%।

বাংলাদেশে বসবাসরত শিশুদের ক্ষেত্রে কিন্তু একটা বিষয় কিন্তু প্রতীয়মান হয়েছে যে তারা কিন্তু পুষ্টিহীনতায় ভুগছে এখানে অপুষ্টির হার ১৭.৬%।বাবা মা রা দেখা যাচ্ছে যে স্বাস্থ্যকর এবং পুষ্টিকর খাবারের চাইতে বেশী পরিমাণ জাংক ফুড জাতিয় খাবার খাওয়ান এই খাবারগুলো বেশি খাওয়ার কারনে বাচ্ছারা মুটিয়ে যাচ্ছেন।

তা ভহারা ও খোলা মাঠে খেলা ধুলা করতে না পারার কারনে বাচ্ছারা মুটিয়ে যাচ্ছেন।

এ সম্পর্কে উল্লেখ করছেন ড. আমিন তিনি বিবিসিকে তিনি বলছেন,৪র্থ শ্রেনী হতে অতিরিক্ত লেখা পড়ার চাপ এর কারনে বাচ্চারা খেলার সুযোগ পাই না ফলে তারা ছোট বেলা থেকে অলস ভাবে গড়ে উঠছে।এবং বেশীর ভাগ মায়েরা চাকুরী জিবি হবার কারনে তারা ঘড়ে তৈরী খাবারের ছাইতে বাইরে তৈরী খাবার বেশী খাওয়ান যার ফলে সে সব খাবারে বিভিন্ন রকম ফ্যাট আছে যা তাদের শরীর কে মুটিয়ে ফেলছে। তারা শারিরিক পরিশ্রম করে না সব সময় কম্পিউটার, ইন্টারনেট মোবাইল গেম নিয়ে ব্যস্ত থাকে। আর তাই ওজন বাড়ছে এবং ওজনজনিত রোগ বাড়ছে। যেমন ডায়াবেটিসের মতো সমস্যা ও উচ্চ রক্তচাপ জনিত সমস্যায় ভূগছে ।

ড. ফিরোজ আমিন বলছেন, পূবে ২০ বছরের কম বয়েসী মানুষের ডায়াবেটিস দেখা বর্তমান এই সমস্যা বড় সংখ্যায় দেখা যাচ্ছে।



Similar Post You May Like